সীতাকুণ্ড ইকো পার্ক: ১ দিন

Bangladesh

সীতাকুণ্ড ইকো পার্ক: ১ দিন

৳ 1800 per person

ইকো-পার্ক, বাংলাদেশের চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় অবস্থিত একটি বন্য প্রাণীর অভয়ারণ্য।

ঐতিহাসিক চন্দ্রনাথ পাহাড়ের পাদদেশে বাংলাদেশের প্রথম এবং এশিয়া মহাদেশের বৃহত্তম ইকোপার্ক বোটানিক্যাল গার্ডেনটির অবস্থান। ১৯৯৮ সালে এই বোটানিক্যাল গার্ডেন ও ইকোপার্ক প্রতিষ্ঠিত হয়। ৮০৮.০০ হেক্টর জমি নিয়ে এই বন্যপ্রাণ অভয়ারণ্যটি গঠিত। ১৯৯৬ একরের পার্কটি দুই অংশে বিভক্ত। ১,০০০ একর জায়গায় বোটানিক্যাল গার্ডেন ও ৯৯৬ একরজায়গা জুড়ে ইকোপার্ক এলাকা। জীব-বৈচিত্র্য সংরক্ষণ ও বন্যপ্রাণীর অভয়ারণ্য এবং পর্যটকদের বিনোদনের জন্য বন বিভাগের প্রচেষ্টায় গড়ে ওঠা পার্কটিতে রয়েছে বিরল প্রজাতির গাছপালা, হাজারো রকমের নজরকাড়া ফুলের গাছ, কৃত্রিম লেক ও নানা প্রজাতির জীববৈচিত্র্য। রয়েছে সুপ্তধারা ও সহস্রধারা ঝর্ণা সহ ঝিরিপথের ছোট-বড় বেশ কয়েকটি ঝর্ণা, পিকনিক স্পট, বিশ্রামের ছাউনি।

মূল ফটক পেরিয়ে একটু এগোলেই রয়েছে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের স্মৃতিস্তম্ভ কবি এসেছিলেন পাহাড়ের জনপদে এরই বিস্তারিত লেখা আছে স্তম্ভটির পাশে সাঁটানো সাইনবোর্ডে এর কিছুদূর এগোলে ম্যাপে পার্কটির দর্শনীয় স্থান নির্দেশিত রয়েছে

সেখানে নির্দেশিত পথ ধরে দেড় কিলোমিটার এগোলে সুপ্তধারা ঝর্ণার সাইন বোর্ডসুপ্তধারা ঘুমিয়ে পড়ি জেগে উঠি বরষায় এরপর প্রায় এক কিলোমিটার পাহাড়ি ট্রেইল পেরিয়ে দেখা পাবেন অনিন্দ্যসুন্দর ঝর্ণাসুপ্তধারা আবার এক কিলোমিটার পর্যন্ত গেলে চোখে পড়বে সহস্রধারা ঝর্ণার সাইন বোর্ড এই এক কিলোমিটার পথে রয়েছে পিকনিক স্পট, ওয়াচ টাওয়ার, হিম চত্বর সেখানে সেট করা চেয়ারে বসে দূর সমুদ্রের রূপ চোখে পড়বে সহস্রধারা ঝর্ণা দেখে এসে বোটানিকাল গার্ডেনের উত্তরে গেলে চোখে পড়বে পাহাড় আর পাহাড় সহস্র ধারা সুপ্তধারা ঝর্ণা থেকে বহমান জলকে কৃত্রিম বাঁধ তৈরির মাধ্যমে গড়ে তোলা হয়েছে কৃত্রিম লেক

পার্কটির মূল আকর্ষণ চন্দ্রনাথ মন্দির টিকেট কাউন্টার থেকে মন্দির পর্যন্ত কিলোমিটারের পথ পায়ে হেঁটে অথবা গাড়ি ভাড়া করে যাওয়া যায় মন্দিরের নিচে থেকে পাহাড়ি পথে খাড়া সিঁড়ি বেয়ে উঠলে দেখা মিলবে মন্দিরের সনাতন ধর্মাবলম্বীরা পূজায় মগ্ন থাকেন এখানে ফাল্গুনে শিবসংক্রান্তি পূজার সময় দেশ বিদেশের বৈষ্ণববৈষ্ণবীদের কীর্তনে মুখর হয়ে ওঠে পুরো চন্দ্রনাথ

 

এখানে চোখ পড়বে পাহাড়ে জন্মানো নানা প্রজাতির ফুল এখানে রয়েছে দুর্লভ কালো গোলাপসহ প্রায় ৩৫ প্রকার গোলাপজবানাইট কুইনপদ্মস্থলপদ্মনাগবল্লীরঙ্গনরাধাচূঁড়াকামিনীকাঠ মালতীঅলকানন্দাবাগানবিলাসহাসনাহেনাগন্ধরাজফনিকা মিলে রয়েছে ১৫০ জাতের ফুল

 

এখানে পাহাড়ের বাঁকে বাঁকে দেখতে পাওয়া যায় বিভিন্ন প্রজাতির পাখি আর বন্যপ্রাণীর পার্কটিতে রয়েছে মায়া হরিণবানরহনুমানশূকরসজারুমেছোবাঘভালুকবনরুই  বনমোরগ এছাড়াও আছে দাঁড়াশগোখরাকালন্তিলাউডগাসহ নানা প্রজাতির সাপ  জলজ প্রাণী

  • Destination
  • Departure
    Dhaka, Bangladesh
0.0
Accomodation0%
Destination0%
Meals0%
Overall0%
Satisfaction0%
Transport0%
Value For Money0%

POST A REVIEW

প্যাকেজে যা যা অন্তর্ভুক্ত

  • খুব সকালে ফেনী পোঁছানো এবং সকালের নাশতা
  • তারপর বাস অথবা সি.এন.জি করে সীতাকুণ্ড বাজার
  • সীতাকুণ্ড চন্দ্রনাথ পাহাড় ও আদিনাথ মন্দির ভ্রমন
  • লোকাল রেস্টুরেন্ট এ দুপুরের খাবার
  • বোটানিক্যাল গার্ডেন ও ইকো পার্ক,সীতাকুণ্ড
  • সুপ্তধারা ঝর্ণায় গোসল এবং সহস্রধারা ঘুরে দেখা
  • গুলিয়াখালি সমুদ্র সৈকত
  • কুমিরা সী ব্রিজ
  • বিকাল অথবা সন্ধায় বাসে করে ঢাকা ব্যাক

প্রযোজ্য বিষয়সমূহ

  • প্রথমেই একটি ভ্রমণ পিপাসু মন থাকতে হবে।
  • ভ্রমণকালীন যে কোন সমস্যা নিজেরা আলোচনা করে সমাধান করতে হবে।
  • ভ্রমণ সুন্দর মত পরিচালনা করার জন্য সবাই আমাদেরকে সর্বাত্মক সহায়তা করতে হবে।
  • অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে যে কোন সময় সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে ।
  • যে কোন শর্তাবলী প্রযোজ্য ।

যা যা নিয়ে আসবেন

রেইনকোট/ছাতা, হাঁটার স্লিপার জুতা, সূর্য থেকে সুরক্ষার জন্য হ্যাট / ক্যাপ, সান -বাম লোশন, রোদ চশমা, ক্যামেরা , জরুরী ঔষধ,পতঙ্গনাশক ক্রীম, পানির বোতল, গামছা ইত্যাদি।

Prices

  • খরচ: (০২- ১০+)জন – ১৮০০ টাকা জনপ্রতি।

নিবন্ধন

আগ্রহীরা ৫০% টাকা জমা দিয়ে কনফার্ম করবেন। শুক্রবার ছাড়া যে কোনো দিন সরাসরি অফিসে এসে বা বিকাশে মাধ্যমে পেমেন্ট করে নিবন্ধন করতে পারবেন। বিঃদ্রঃ- যে কোন শর্ত প্রযোজ্য

সতর্কতা

খাবারের অবশিষ্ট বা উচ্ছিষ্ট অংশ, চিপসের প্যাকেট, সিগারেটের ফিল্টার, পানির বোতলসহ অন্যান্য আবর্জনা পার্কের ভিতরে ট্যুর বা ভ্রমণ স্থানে অথবা যেখানে সেখানে না ফেলে নিদিষ্ট স্থানে বা ব্যাকপ্যাকে করে সাথে নিয়ে আসুন। মনে রাখবেন, প্রকৃতির এই সৌন্দর্যকে টিকিয়ে রাখার দায়িত্ব আমাদেরই।