গ্যাংটক-সিকিম: ৫দিন & ৬রাত

India

গ্যাংটক-সিকিম: ৫দিন & ৬রাত

৳ 23999 per person

গ্যাংটক (Gangtok) হল ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিম এর রাজধানী ও বৃহত্তম শহর। পূর্ব হিমালয় পর্বতশ্রেণির শিবালিক পর্বতে ১৪৩৭ মিটার উচ্চতায় এই গ্যাংটকের অবস্থান। আলপাইন সৌন্দর্যের জন্য একে প্রায়ই “পূর্বের সুইজারল্যান্ড” বলা হয়।

গ্যাংটক (Gangtok) হল ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিম এর রাজধানী ও বৃহত্তম শহর। পূর্ব হিমালয় পর্বতশ্রেণির শিবালিক পর্বতে ১৪৩৭ মিটার উচ্চতায় এই গ্যাংটকের অবস্থান। মাত্র ৩০ হাজার বাসিন্দার এই শহরটির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য কথায় বর্ণনা করে শেষ করা অসম্ভব। হিমালয় পর্বতমালার সুউচ্চ শিখরগুলির মাঝখানে মনোরম ও আরামদায়ক পরিবেশে গ্যাংটকের অবস্থান। মেঘের বাড়ি সিকিম ঘোরার সবথেকে সহজ উপায় হল গ্যাংটককে কেন্দ্র করে ঘোরা। প্রথমবারের জন্য সিকিম হলে তো কথাই নেই। গ্যাংটক একেবারে ‘মাস্ট’। সিকিম মানেই পাহাড়ি রাস্তায় ঘুরে ঘুরে যত উপরে উঠা। আলপাইন সৌন্দর্যের জন্য একে প্রায়ই “পূর্বের সুইজারল্যান্ড” বলা হয়।

গ্যাংটক ও এর আশে পাশের অঞ্চল পুরোটাই সুবিশাল ও দৃষ্টিনন্দন পাহাড়ে ঘেরা। বৈচিত্র্যময় উদ্ভিদ, সাথে বিচিত্র প্রাণিকুল মিলিয়ে গ্যাংটক হয়ে উঠেছে প্রকৃতিপ্রেমীদের স্বর্গরাজ্য। রডোডেন্ড্রন, অর্কিডের ন্যায় ফুল, সাথে লাল পান্ডা, লাল রঙ্গিন পাখি এগুলো গ্যাংটকের অন্যতম প্রধান আকর্ষণ। গ্যাংটকে পর্যটকদের মন মাতানোর জন্য অনেক হ্রদ, ঝর্ণা ও পাহাড় রয়েছে। তবে এদের মধ্যে সোমগো ও মেনমেকো হ্রদই বেশি পরিচিত। দার্জিলিং এ কাঞ্চনজঙ্ঘার যেই সৌন্দর্য দেখে থাকেন, সেই সৌন্দর্য থেকে আপনাকে বঞ্চিত করবে না গ্যাংটকও। বিশ্বের তৃতীয় উচ্চতম পর্বতশৃঙ্গ কাঞ্চনজঙ্ঘার দর্শন আপনি পাবেন গ্যাংটক থেকেও। হট স্প্রিংগুলো সালফারের উচ্চ ঘনত্বের কারণে ভেষজ গুণের জন্য সুপরিচিত। পর্যটকদের মধ্যে জনপ্রিয় হত স্প্রিংগুলির মধ্যে রয়েছে ইউম সামডোং হটস্প্রিং, রেশি হটস্প্রিং ইত্যাদি। এখানকার কয়েকটি বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য হল- কাঞ্চনজঙ্ঘা জাতীয় উদ্যান ও ফামবং লো বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য।

  • Destination
  • Departure
    Dhaka. Bangladesh
1
১ম রাত
রাতে আমরা ঢাকা থেকে বাসে বুড়িমারী এর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবো। [ডিনার: না]
2
১ম দিন
সকালে আমরা বুড়িমারী পৌঁছে ব্রেকফাস্ট নিজ দায়িত্বে করবো। বর্ডারের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে শিলিগুড়ির উদ্দেশে যাত্রা করবো । যাএা পথে দুপুরের খাবার খেয়ে নিবো। বিকালের মধ্যে গ্যাংটকে পৌঁছাবো । রাত্রি যাপন গ্যাংটক হোটেলে । [ব্রেকফাস্ট: না | লাঞ্চ: হ্যা | ডিনার: হ্যা]
3
২য় দিন
গ্যাংটক সাইটসিয়ীইং
সকালের নাস্তা সেরে আমরা চাংগু লেক সাইটসিইং এর উদ্দেশে যাত্রা করবো, ৩২৫ রুপি (নিজ খরচে) দিয়ে ক্যাবল রাইড করতে পারেন।সাইটসিইং শেষ করে হোটেলে ফিরে আমরা দুপুরের খাবার খাবো । বিকেলে নিজেদের মতো করে ঘুরাঘুরি শপিং করা এবং রাতের খাবার খেয়ে গ্যাংটক হোটেলে সারারাত্রি যাপন । [ব্রেকফাস্ট: হ্যা | লাঞ্চ: হ্যা | ডিনার: হ্যা]
4
৩য় দিন
সকালের নাস্তা সেরে হোটেল থেকে চেক আউট করে গ্যাংটক থেকে লাচুং এর উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবো ৬ ঘন্টা লাগবে । যাএা আমরা দুপুরের খাবার খেয়ে নেবো । লাচুং যাওয়ার পথে সিংহিক ভিউ পয়েন্ট, সেভেন সিস্টার ওয়াটার ফলস এবং নাগা ওয়াটার ফলস দেখবো। লাচুং পৌছে হোটেলে চেক ইন করব । রাত্রি যাপন লাচুং হোটেলে । [ব্রেকফাস্ট: হ্যা | লাঞ্চ: হ্যা | ডিনার: হ্যা]
5
৪র্থ দিন
লাচুং – ইয়ামথাং ভ্যালি ট্যুর -গ্যাংটক সাইটসিয়ীইং
সকালের নাস্তা সেরে নর্থ সিকিমের মূল আকর্ষণ ইয়ামথাং ভ্যালির উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবো । জিরো পয়েন্ট যদি কেউ যেতে চান ₹৩,০০০ রুপি অতিরিক্ত খরচ দিতে হবে । ইয়ামথাং ভ্যালি দর্শন শেষে লাচুং হোটেলে ফিরে দুপুরের খাবার খেয়ে নিবো। এরপরে হোটেল থেকে চেক আউট করে গ্যাংটক এর উদ্দেশে রওনা হব । গ্যাংটক হোটেলে পৌছে রাতের খাবার খেয়ে রাত্রি যাপন। [ব্রেকফাস্ট: হ্যা | লাঞ্চ: হ্যা | ডিনার: হ্যা]
6
৫ম দিন
সকালের নাস্তা সেরে আমরা গ্যাংটক হোটেল থেকে চেক আউট করে শিলিগুড়ির উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবো । গ্যাংটক এর সৌন্দর্য উপভোগ করতে করতে শিলিগুড়িতে দুপুরের খাবার খেয়ে নিবো। খাবার শেষে বুড়িমাড়ি এর উদ্দেশ্যে রওনা দিব । বর্ডার এর আনুষ্ঠানিকতা সম্পূর্ণ করে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করবো । [ব্রেকফাস্ট: হ্যা | লাঞ্চ: হ্যা | ডিনার: না]
7
৬ষ্ঠ দিন
ঢাকায় আগমন ! সারা রাত্রি বাস জার্নি করে সকালে আমরা ঢাকায় পৌঁছাবো ।
0.0
Accomodation0%
Destination0%
Meals0%
Overall0%
Satisfaction0%
Transport0%
Value For Money0%

POST A REVIEW

প্যাকেজে যা যা অন্তর্ভুক্ত

  • ঢাকা-শিলিগুড়ি-ঢাকা বাস
  • শিলিগুড়ি -গ্যাংটক-শিলিগুড়ি ট্রান্সপোর্ট খরচ
  • ৩রাত গ্যাংটক, ১রাত লাচুং হোটেলে রাতযাপন।
  • সকল লোকাল ট্রান্সপোর্ট খরচ
  • প্রতিদিন ৩ বেলা খাবার

প্যাকেজে যা যা অন্তর্ভুক্ত নয়

  • ভিসা ফি-৮৪০/-
  • ট্রাভেল ট্যাক্স
  • ব্যক্তিগত খরচসমুহ
  • প্রবেশ ফি
  • বর্ডার টিপস (৬০০)
  • অন্যান্য নিজস্ব খরচ

ট্যুরে যা দেখবো

  • গ্যাংটক শহর
  • চাংগু লেক
  • বাটারফ্লাই ওয়াটার ফলস
  • সেভেন সিস্টার ওয়াটার ফলস
  • নাগা ওয়াটার ফলস
  • ভিম ওয়াটার ফলস
  • লাচুং শহর
  • ইয়ামথাং ভ্যালী

প্রযোজ্য বিষয়সমূহ

  • প্রথমেই একটি ভ্রমণ পিপাসু মন থাকতে হবে।
  • ভ্রমণকালীন যে কোন সমস্যা নিজেরা আলোচনা করে সমাধান করতে হবে।
  • ভ্রমণ সুন্দর মত পরিচালনা করার জন্য সবাই আমাদেরকে সর্বাত্মক সহায়তা করতে হবে।
  • অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে যে কোন সময় সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে ।
  • যে কোন শর্তাবলী প্রযোজ্য ।

যা যা নিয়ে আসবেন

পোশাক: সিকিম এ শীত তাই শীতের পোশাক অবশ্যই সাথে রাখতে হবে। বৃষ্টি থেকে নিরাপদ থাকতে ছাতা/ রেইনকোট,পাহাড়ি পথে হাটার জন্য কেডস,রোদ থেকে নিরাপদ থাকতে সানগ্লাস/সানক্যাপ। অন্যান্য: বাইনোকুলার, ক্যামেরা, টুথপেস্ট, টুথব্রাশ, টাওয়েল, স্লিপার, জরুরি ঔষধ। ফার্স্ট এইড ব্যান্ডেজ।

শিশু পলিসি

  • ০-২ বছর কোন খরচ লাগবে না (বাবা মায়ের সাথে থাকবে, বাবা মায়ের সাথে খাবে বাসে আলাদা সিটের ভাড়া ব্যতীত)
  • ৩ থেকে ০৬ বছর বয়সের শিশুদের জন্য ৭০% খরচ বহন করতে হবে (আলাদা বেড এবং বাস / বিমানের চাইল্ড পলিসি হিসেবে ভাড়া ব্যতীত )।
  • ০৬ বছরের উপরে সকলকে প্রাপ্ত বয়ষ্ক হিসেবে গণ্য করা হবে।

বুকিং_পলিসি

  • বুকিং কনফার্ম করতে জনপ্রতি নু্ন্যতম ৫০% টাকা জমা দিতে হবে
  • অফিসে এসে পেমেন্ট করতে পারেন।
  • বিকাশ পেমেন্ট করতে পারেন।
  • ব্যাংক একাউন্ট পেমেন্ট করতে পারেন
  • বিঃদ্রঃ শর্ত প্রযোজ্য

সতর্কতা

খাবারের অবশিষ্ট বা উচ্ছিষ্ট অংশ, চিপসের প্যাকেট, সিগারেটের ফিল্টার, পানির বোতলসহ অন্যান্য আবর্জনা পার্কের ভিতরে ট্যুর বা ভ্রমণ স্থানে অথবা যেখানে সেখানে না ফেলে নিদিষ্ট স্থানে বা ব্যাকপ্যাকে করে সাথে নিয়ে আসুন। মনে রাখবেন, প্রকৃতির এই সৌন্দর্যকে টিকিয়ে রাখার দায়িত্ব আমাদেরই।